স্কুলে আচরণীয়

অনুপস্থিতি

  • স্কুলে ৭৫ শতাংশ উপস্থিতি সকল শিক্ষার্থীর জন্য বাধ্যতামূলক। এই শর্ত পূরণে ব্যর্থ হলে পদোন্নতির জন্য সে যোগ্য নাও হতে পারে। চিকিৎসাগত বা অন্য কোন অনিবার্য জরুরি পরিস্থিতিতে এই নিয়ম শিথিল করা যেতে পারে। ছুটি ছাড়া বারবার স্কুলে অনুপস্থিতি বা একটানা পাঁচ দিনের বেশি সময় না এলে সেই শিক্ষার্থীর নাম ক্লাস রেজিস্টার থেকে বাদ দেওয়া হতে পারে। স্কুল অধ্যক্ষ / প্রধান শিক্ষক-শিক্ষিকার বিবেচনার ভিত্তিতে তাকে পুনরায় ভর্তির ফি প্রদানের মাধ্যমে রি-এডমিশন দেওয়া যেতে পারে।
    • একমাত্র পিতা-মাতা বা অভিভাবকের কাছ থেকে একটি যুক্তিসঙ্গত আবেদন ছাড়া অনুপস্থিতির কোন ছুটি মঞ্জুর করা হবে না।
    • সংক্রামক বা ছোঁয়াচে রোগে আক্রান্ত হওয়ার পর স্কুলে পুনরায় আসার জন্য একজন শিক্ষার্থীকে অবশ্যই একটি ডাক্তারের স্কুলে যাওয়ার অনুমতি সংক্রান্ত শংসাপত্র জমা করতে হবে।

প্রত্যাহার বা সাসপেনশন

  • স্কুলে ভর্তির পর যেকোনো কারণে একজন শিক্ষার্থী তার নাম প্রত্যাহার করতে চাইলে স্কুলকে প্রদেয় সমস্ত বকেয়া পরিশোধের সাপেক্ষে শুধুমাত্র তার কাছ থেকে নেওয়া caution money (সতর্কতামূলক টাকা) ফেরত দেওয়া হবে। কোন অবস্থাতেই স্কুলকে প্রদেয় বকেয়া অর্থের বিপরীতে caution money – র‌ সমন্বয় করা হবে না। নাম প্রত্যাহারের একটি লিখিত নোটিশ অবশ্যই একমাস আগে স্পষ্ট করে লিখে দিতে হবে অথবা তার পরিবর্তে এক মাসের টিউশন ফি দিতে হবে।
  • একজন শিক্ষার্থীকে অধ্যক্ষ / প্রধান শিক্ষক-শিক্ষিকার বিবেচনার ভিত্তিতে নিম্নলিখিত যেকোনো একটির জন্য স্কুল ত্যাগ করতে বলা হতে পারে –
    • শৃঙ্খলামূলক
    • কাজের অসন্তোষজনক অগ্রগতি
    • একটি ক্লাসে বারবার আটকে থাকা
    • স্কুল এবং অন্যান্য শিক্ষার্থীদের স্বার্থে অধ্যক্ষ / প্রধান শিক্ষক-শিক্ষিকা যদি এটা প্রয়োজনীয় বা যথাযথ বলে মনে করেন এমন কোনো কারণে।

একটি ব্যাক্তিগত সফরের পরিকল্পনা করুন।

একদিন সময় বের করে সচক্ষে দেখে যান ডিপিএস দুর্গাপুরের ক্যাম্পাস। আমাদের টিম এব্যাপারে আপনাদের সাহায্য করবে।

"ভর্তি", "বিজ্ঞপ্তি", "সিলেবাস" ইত্যাদি অনুসন্ধান করুন এবং এন্টার টিপুন।

Please fill in the required field.
Please fill in the required field.
Please fill in the required field.

Contact Us